English
রবিবার ০৫ ফেব্রয়ারি ২০২৩
...

বিএনপির ২৩ নেতাকর্মি কারাগারে

কারাগার - প্রতীকী ছবি

ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর ২০২২, ররিবারঃ রাজধানীর পল্টন মডেল ও মতিঝিল থানার পৃথক দুই মামলায় রিমান্ড শেষে ঢাকা জেলা বিএনপি সভাপতি খন্দকার আবু আশফাকসহ ২৩ বিএনপি নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ নুরুল হুদা চৌধুরীর আদালত কারাগারের আদেশ দেন।

আজ আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। এসময় আসামিপক্ষ জামিন চেয়ে আবেদন করে। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুল হুদা চৌধুরী তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

পল্টন থানার মামলায় কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন- বিএনপির সহ-জলবায়ু সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান সেলিম, বিএনপি নেতা শাহজাহান, এ কে এম আমিনুল ইসলাম, ওয়াকিল আহমেদ, সজীব ভূঁইয়া, সারোয়ার হোসেন... শেখ, সাইদুল ইকবাল মাহমুদ, মিজানুর রহমান, আল-আমিন, সাইফুল, শুভ ফরাজি ও মাহমুদ হাসান রনি।

মতিঝিল থানার মামলায় কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন- জামিল হোসাইন, হারুনুর রশীদ, রিয়াদ আহমেদ, রবিউল ইমরান, জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, মোস্তাক মিয়া, মাহাবুব মিয়া, খোরশেদ আলম সোহেল ও সোহাগ মোল্লা।  গত ৮ ডিসেম্বর রাজধানীর পল্টন মডেল ও মতিঝিল থানায় বিস্ফোরক দ্রব্যাদি আইনে হয় পৃথক দুটি মামলা।

এর আগে গত ৮ ডিসেম্বর রাজধানীর পল্টন মডেল ও মতিঝিল থানায় বিস্ফোরক দ্রব্যাদি আইনের পৃথক দুটি মামলা হয়। এ মামলায় গত ৮ ডিসেম্বর আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাদের প্রত্যেকের সাত দিন করে রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। অন্যদিকে আসামিপক্ষ রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে শুনানি করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে প্রত্যেকের দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন