English
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
...

বাংলাদেশে কারামুক্ত হলেন ৪১ বন্দি

কারাগার 

ঢাকা, ৯ মে ২০২০, শনিবার: করোনাভাইরাসের কারণে লঘুদন্ড মওকুফ করে আজ দুপুরে মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারের ৪১ বন্দিকে একযোগে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

এরা সবাই তিন মাসের অধিক সময় কারাভোগ করেছেন এবং অনুর্ধ ছয় মাসের বিনাশ্রম সাজা প্রাপ্ত। এদের কারো জরিমানা না থাকায় তাৎক্ষণিক মুক্তি দেয়া হয়। তবে জারিমানার টাকার পরিশোধ করতে না পারায় ২০ জনের মুক্তি আটকে আছে।

সরকার কারাগাটির ৭১ জনের মুক্তি আদেশ জারি করেছে। এর আগে আরও ১০জন কয়েদীকে মুক্তি দেয় হয়। ৩৬৩ জনের ধারণ ক্ষমতার মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারটিতে কয়েদি হাজতী মিলে ৭৬৩ বন্দি অবস্থান করছিল।

মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. নুরুন্নবী ভূইয়া সংবাদ মাধ্যমকে জানান, "স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে লঘুদ- মওকুফ করে সরকার সদয় হয়ে করোনার কারণে এই মুক্তির... আদেশ দেয়। মুন্সীগঞ্জ কারা কর্তৃপক্ষ ৭১ জন কয়েদী এবং ২শ’ হাজতী সংখ্যা মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করে।"

তিনি আরো জানান, "সরকার তিন দফায় ৭১ জন কয়েদীকেই মুক্তির আদেশ দেয়। এর মধ্যে প্রথম দফায় একজন এবং দ্বিতীয় দফায় পাঁচ জন এবং তৃতীয় দফায় বাকি ৬৫ জনের আদেশ জারি হয়।"

মুন্সীগঞ্জ কারা কর্তৃপক্ষ শুক্রবার রাতে তৃতীয় দফার মুক্তির আদেশ পেয়ে শনিবার দুপুরে ৪১ জনকে মুক্তি দেয়। এই তালিকার ৫ জন এর আগেই স্বাভাবিকভাবে মুক্তি পেয়ে যায়।

তবে এখনও জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় তৃতীয় দফার ১৯ জন এবং দ্বিতীয় দফার একজনকে এখনও মুক্তি এখন হয়নি। মামলার আদেশ অনুযায়ী ধার্য্য করা জরিমানার টাকা পরিশোধ করলেই মুক্তি দেয়ার পরই মুক্তি পাবে। নতুবা আনাদায়ী সাজা খেটে তারা মুক্তি পাবেন।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন