English
মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
...

করোনাকাল: বাংলাদেশে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ 

চিকিৎসক

ঢাকা, ২৯ এপ্রিল ২০২০, বুধবারঃ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি সামাল দিতে নতুন করে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার কমিশনের বিশেষ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ৩৯তম বিশেষ বিসিএস থেকে নতুন চিকিৎসক নেওয়ার পক্ষে মত দিয়ে ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে চিঠি দিয়েছেন। আর এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, এটি নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছেন তাঁরা।

গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য নতুন ২ হাজার চিকিৎসক এবং ৬ হাজার নার্স নিয়োগের কথা জানিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এরপর গত রবিবার প্রথমে ছয় হাজার সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ দেওয়ার জন্য পিএসসিকে চাহিদাপত্র পাঠায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সরকারের কাছ থেকে চাহিদাপত্র পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার থেকে সরকারি কর্ম কমিশনের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার পরীক্ষার শাখার... কার্যক্রম বিশেষ ব্যবস্থায় চালু করা হয়। ২০১৮ সালে নিয়োগ দেওয়া নার্সের অপেক্ষামান তালিকা থেকে আপাতত পাঁচ হাজার নার্স নিয়োগ দিতে পারবে পিএসসি। গত সোমবারই চিকিৎসক নিয়োগের চাহিদাপত্র পায় পিএসসি।

পিএসসি জানিয়েছে, ৩৯তম বিশেষ বিসিএসে পিএসসি উত্তীর্ণ ৮,৩৬০ জনের মধ্য থেকে ৪,৭৯২ জন চিকিৎসক নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। ২০১৮ সালে ১০ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের আবেদনপত্র নেয়া হয়।

পরবর্তীতে একই বছরের ৩ আগস্ট এই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় এবং এতে ৩৭ হাজার ৫৮৩ জন অংশ নেন, পাস করেন মোট ১৩ হাজার ৭৫০ জন চিকিৎসক। তন্মধ্যে সহকারী সার্জন পদে ১৩ হাজার ২১৯ চিকিৎসক ও ৫৩১ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে উত্তীর্ণ হন।

এদিকে, ৩৯তম বিশেষ বিসিএস থেকে চিকিৎসক নিয়োগের প্রস্তাব করেছে চিকিৎসকদের সংসঠন 'বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ)'। সংগঠনটির মহাসচিব ইহতেশামুল হক চৌধুরী সম্পতি এ সংক্রান্ত প্রস্তাবনা সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে দিয়েছেন।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন