English
বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
...

চলে গেলেন জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী

অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী

ঢাকা, ২৮ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার: করোনাকালে জাতির এ ক্রান্তিলগ্নে হারিয়ে গেলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা, জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রজিউন)। আজ ভোরবেলা সেহেরীর সময় তিনি চিরনিদ্রায় আপন ঠিকানায় চলে গেলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তিনি গতরাতে তাঁর ধানমন্ডিস্থ বাসায় ঘুমিয়েছিলেন এবং উনার স্ত্রী সেহেরীর সময় ঘুম থেকে জাগাতে গিয়ে কোন সাড়া না পেয়ে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান যে উনি পূর্বেই মারা গেছেন।

মৃত্যুকালে ৭৭ বছর বয়সি এই জাতীয় সফল ও কৃতি ব্যক্তিত্ব র্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের (ইউএপি) উপাচার্যের দায়িত্বরত ছিলেন। আলোকিত বিরল জীবনের  অধিকারী এই শিক্ষক রেখে গেছেন দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় বিশ্বস্থ অনুপ্রেরণাশীলা সহযাত্রী -  স্ত্রী সেলিনা চৌধুরী, সিভিল ইঞ্জিনিয়ার মেয়ে কারিশমা ফারহিন চৌধুরী আর ছেলে কম্পিউটার প্রকৌশলী কাশিফ রেজা চৌধুরীকে।

অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী ১৯৪৩ সালের ১৫ নভেম্বর সিলেট শহরের ঐতিহ্যবাহি বিশিষ্ট ও সম্ভ্রান্ত চৌধুরী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা প্রকৌশলী আবিদ রেজা চৌধুরী ও মাতা হায়াতুন নেছা। তিন ভাই, দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়।

তিনি ঢাকা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকে অন্যতম সেরা মেধাবী ছাত্র ছিলেন এবং ১৯৫৯ সালে এইচএসসি পাশ করে তৎকালীন আহসানউল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তি হন (যা আজকের বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট)। জামিলুর রেজা চৌধুরী সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক পাশ করেন ১৯৬৩ সালে এবং সেখানেই শিক্ষক হিসাবে পেশাগত  অধ্যায় আরম্ভ করেন। 

তিনি ১৯৬৪ সালে উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাজ্যে চলে যান এবং সাউদাম্পটন... বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাডভান্স স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়াারিংয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী শেষে ১৯৬৮ সালে সেখানেই পিএইচডি অর্জন করেন। এরপর দেশে ফিরে আবার বুয়েটে শিক্ষকতা শুরু করেন।

জামিলুর রেজা চৌধুরী ১৯৯৬ সালের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতে অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১৭ সালে তিনি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে একুশে পদক লাভ করেন।

তিনি ২০১৮ সালে বাংলাদেশের জাতীয় অধ্যাপক নির্বাচিত হন। জামিলুর রেজা চৌধুরী একমাত্র বাংলাদেশি যিনি ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটি থেকে সম্মানসূচক ডক্টর অব ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি লাভ করেন।

আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাতিমান ও সমাদৃত অধ্যাপক চৌধুরী ৭০টির মত গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে, স্বীকৃতি হিসেবে বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট স্বর্ণপদক, পুরস্কার আর সম্মাননা পেয়েছেন।

তিনি বাংলাদেশে আর্থকোয়েক সোসাইটি, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), ২০০৩ সালে বাংলাদেশ ম্যাথমেটিকাল অলিম্পিয়ার্ড কমিটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্বও পালন করেছেন। বুয়েট থেকে অবসরে যাওয়ার পর ২০০১ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত অধ্যাপক চৌধুরী ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী ছিলেন বাংলাদেশের একজন খ্যাতনামা প্রকৌশলী, গবেষক, শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞানী, তথ্য-প্রযুক্তিবিদ। 

স্বাধীন বাংলাদেশের যত ভৌতিক অবকাঠামো তৈরি হয়েছে, তার প্রায় প্রতিটির সঙ্গেই তিনি স্বক্রীয়ভাবে যুক্ত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে তাঁর ভূমিকা ছিল অগ্রগণ্য। একুশে পদকপ্রাপ্ত এই অধ্যাপক পদ্মাসেতু প্রকল্পের পরামর্শক এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সোসাইটিতে ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেছেন।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন