English
মঙ্গলবার ০১ ডিসেম্বর ২০২০
...

করোনাকাল: প্রয়োজনে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ - প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ঢাকা, ২৭ এপ্রিল ২০২০, সোমবারঃ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতির আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল ও কলেজ বন্ধ থাকবে বলে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ গণভবনে কয়েকটি জেলার জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিং এ প্রধানমন্ত্রী আজ এ কথা জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সকালে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ ও সংকট মোকাবেলা সমন্বয়ে তাঁর সরকারী বাসভবন গণভবন থেকে রাজশাহী বিভাগের আট জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়কালে এই ঘোষণা দেন। জেলাগুলো হচ্ছে- বগুড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট, নওগাঁ, নাটোর, পাবনা, রাজশাহী এবং সিরাজগঞ্জ। 

করোনাভাইসের প্রকোপ বাড়তে থাকায় গত ১৭ মার্চ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয় এবং ২৬ মার্চ থেকে সব অফিস আদালত ও যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে সবাইকে যার যার বাড়িতে থাকতে বলা হয়। ২৩ এপ্রিল সেই "সাধারণ ছুটির" মেয়াদ ৫ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে আদেশ জারি হয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটিও একই সময় পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

এদিকে, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একটানা বন্ধ থাকায় পাঠদানের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে ২৯ মার্চ থেকে সংসদ টিভিতে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত এবং গত ৭ এপ্রিল থেকে প্রাথমিক... শ্রেণীর ভার্চুয়াল শ্রেণী কার্যক্রম শুরু করা হয়। তবে এর আগেই ঢাকার অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে।

সরকারের ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে কার্যত লকডাউন পরিস্থিতির কারণে এ বছরের এসএসসি অর্থাৎ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষার ফল এখনো প্রকাশ করা হয়নি। ঐ পরীক্ষায় ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল। পরে সরকার যখন প্রথম দফা সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে, তখন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ ৯ই এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

সে সময় পর্যন্ত সকল স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কোচিং সেন্টারের শ্রেণীকক্ষে পাঠদান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রনালয়। এরপর দফায় দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়। সর্বশেষ করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আগামী ৫ই মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বৃদ্ধি করেছে সরকার।

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সংকট উত্তরণে বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজেরও ঘোষণা দেন। এই সময়ের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যাবে না বলে ২৩শে এপ্রিল সরকারের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে। তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ঈদুল ফিতর পর্যন্ত সব প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করেছে।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন