English
সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
...

করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় ১ জনের মৃত্যু

করোনা ভাইরাস

ঢাকা, ১ এপ্রিল ২০২০, বুধবারঃ দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মোট ৬ জনের মৃত্যু হলো। এছাড়া নতুন করে আরও ৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৪ জনে। এ নিয়ে ২৬ জন সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

আজ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এই তথ্য দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এমআইএস) ডা. মো.হাবিবুর রহমান ও জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট মহাখালীর জীবাণুবিদ ডা. খন্দকার মাহবুবা জামিল উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, "জনগণ এগিয়ে আসুক, টেস্ট করুক। আমি চাচ্ছি না জনগণ কেউ টেস্টের বাইরে থাকুক। যারা সন্দেহজনক অবস্থায় আছেন তারা টেস্ট করিয়ে নিন। নিজেরা ভালো থাকুন পরিবারকে সুরক্ষিত রাখুন। টেস্ট ছাড়া কিন্তু আমরা বুঝতে পারবো না। আমি আবারও আহ্বান করছি যে আপনারা টেস্ট করুন।" 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, "আমরা গত ২৪ ঘন্টায় ১৫৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করেছি। সর্বমোট ১ হাজার ৭৫৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা আছে এমন সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা ৫৪ জন। অর্থাৎ গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ৩ জন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এই ৫৪ জনের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১ জন মৃত্যুবরণ... করেছেন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৬। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমন না থাকায় তারা সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে গেছেন। মোট সুস্থ হয়েছেন ২৬ জন। এই মুহূর্তে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২২ জন।" 

মালেক বলেন, "করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে সরকার জনগণকে অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধ করলেও অনেকে এ নির্দেশনা মানছেন না। রাজধানীসহ সারাদেশে অনেকেই রাস্তায় বের হচ্ছেন, বাজারে ঘোরাফেরা করছেন ও চায়ের স্টলে আড্ডা দিচ্ছেন। বিশেষ করে ঢাকা থেকে যারা গেছেন তারাই ঘোরা-ফেরা বেশি করছেন। দেশকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলবেন না। ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন।" স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান, "গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৫৭ জনকে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হলেন ৫৪ জন।" 

বেসরকারি হাসপাতাল মালিক ও চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, "আরেকটি জিনিস আহ্বান করতে চাই, আমাদের যারা বেসরকারি ডাক্তাররা রয়েছেন তারা ভালো সেবা দেন। তাদের হাসপাতাল রয়েছে। বেসরকারি ডাক্তারদের চেম্বারগুলো অনেকগুলোই বন্ধ আছে, আমাদের কাছে লোকে বলে এবং হাসপাতালগুলোর চিকিৎসা একটু স্তিমিত হয়ে গেছে। আমরা আশা করবো এই সময়ে আপনারাও এগিয়ে আসবেন, দেশবাসীর পাশে থাকবেন। আমরা সব সময় দেশবাসীর পাশে আছি। চেষ্টা করছি আমরা সব সময় চিকিৎসার উন্নয়ন করার জন্য।"




মন্তব্য

মন্তব্য করুন