English
বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
...

করোনা মোকাবেলায় সরকার ও গণমাধ্যম ঐক্যবদ্ধ: তথ্যমন্ত্রী  

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবারঃ তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, "করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট বৈশ্বিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার ও গণমাধ্যম ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে।"

তিনি বলেন, "করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটময় মুহূর্তে সরকার ও গণমাধ্যম ঐকবদ্ধভাবে কাজ করবে এবং একই সঙ্গে গণমাধ্যমে এই সংকটের কারণে যে অভ্যন্তরীণ সমস্যা তৈরি হয়েছে তা নিরসনের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।"

তিনি বলেন, "করোনাভাইরাসকে সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করতে হবে। এখন বাদানুবাদ ও দোষারোপের সংস্কৃতি থেকে আমাদের বের হয়ে এসে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করা প্রয়োজন। এখন রাজনীতি করার সময় নয়। সবাই মিলে দুর্যোগ মোকাবেলা করার সময়। সেক্ষেত্রে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর পাশাপাশি আরো কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।"

আজ দুপুরে রাজধানীর মিন্টু রোডের সরকারি বাসভবনে, নোয়াব, এটকো, এডিটরস গিল্ড ও সম্পাদক পরিষদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, "করোনাভাইরাসকে সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করতে হবে। এখন বাদানুবাদ ও দোষারোপের সংস্কৃতি থেকে আমাদের বের হয়ে এসে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করা প্রয়োজন। এখন রাজনীতি করার সময় নয়। সবাই মিলে দুর্যোগ মোকাবেলা করার সময়। সেক্ষেত্রে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর পাশাপাশি আরো কিছু পদক্ষেপ... গ্রহণ করা হচ্ছে।"

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, "আপনাদের অনুরোধ জানাবো, জনগণ এরই মধ্যে অনেক সচেতন হয়েছে। তবে গ্রামে-গঞ্জে এখনো সচেতনতার অভাব রয়েছে। সবাই যাতে আরো সচেতন হয়, সে বিষয়ে আপনারা সরকারের সঙ্গে একত্রিত হয়ে কাজ করবেন।" 

সাংবাদিকদের স্বাস্থ্য বীমার বিষয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, "আমি ইতোপূর্বে বিএফইউজে ও ডিইউজে’র নেতাদের সঙ্গে যখন বসেছিলাম’ তখন গ্রুপ ইনসুরেন্স করার জন্য বলেছিলাম। কারণ তা করা হলে মিডিয়া হাউজগুলোর জন্যই ভাল হবে। কারণ কোন সাংবাদিক অসুস্থ্য হলে বা কোন দুর্ঘটনায় পতিত হলে গ্রুপ ইনসুরেন্সের মাধ্যমে তারা সহায়তা পেতে পারে।"

তিনি আরও বলেন, "এই সংকটকালীন মুহূর্তে সংবাদপত্র ও টেলিভিশনেও নানা ধরনের সংকট তৈরি হয়েছে। অনেক সংবাদপত্রের সার্কুলেশন কমে গেছে, কোনটার অর্ধেকে নেমে গেছে, তার চেয়েও কমে গেছে। সংবাদপত্রের হকাররা নানা ধরনের সমস্যায় পড়েছে। সংবাদপত্রে যারা কাজ করে অনেক কর্মচারী আছে দিনে এনে দিন খায়, তারাও সংকটে আছে।"

ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, "টেলিভিশনেও একই ধরনের সংকট আছে। এই সকল সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেছি। বিশেষ করে যে বিলগুলো আছে তা যেন সরকার তাড়াতাড়ি ছাড় করতে পারে সে বিষয় নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে।"




মন্তব্য

মন্তব্য করুন