English
মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
...

দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নিষ্পত্তি হবে আবরার হত্যা মামলা: আইনমন্ত্রী

নিহত বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ

ঢাকা, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার: আইনমন্ত্রী আনিসুল হক নির্মমভাবে নিহত বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নিষ্পত্তি হবে বলে আজ সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদেরকে জানিয়েছেন। 


আইনমন্ত্রী জানান জাতীয় চাঞ্চল্যকর এ মামলার দ্রুত নিষ্পত্তিকল্পে সম্ভাব্য সার্বিক আইনি বাধ্যবাধকতা শেষ করে বিচারিক কার্যক্রম শুরু করেছে সরকার, আর এ জন্য একটা প্রসিকিউশন টিম ঠিক করে রাখা হয়েছে, যা আগামী সোমবার থেকে তাদের দায়িত্ব শুরু করতে পারবে।তদন্ত শেষে আজ আদালতে আবরার হত্যা মামলার অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সরকার দ্রুত ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে বদ্ধ পরিকর এ প্রত্যয় ব্যক্ত করে আনিসুল হক বলেন যে ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের নৃশংস ও বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা না ঘটে এজন্য সরকার সচেষ্ট রয়েছে। তিনি বলেন যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচার করার আবেদনের পর আইন মন্ত্রণালয় দ্রুত উদ্যোগ নিবে। দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের প্রথম সময়টা হচ্ছে ৯০ দিন, তারপর সময় দেওয়া হয় ৩০ দিন। মোট ১২০ দিনের মধ্যে বিচারকাজ... শেষ করতে না পারলে তৃতীয়বার ১৫ দিন, সব মিলিয়ে সময় ১৩৫ দিন পাবে আদালত।

আইনমন্ত্রী বলেন, "প্রধানমন্ত্রীরর নির্দেশ ও জনগণের চাহিদা অনুযায়ী এই হত্যার বিচার যথা শিগগিরই করা হবে। জনগণ চেয়েছে নুসরাত হত্যার বিচার দ্রুত করার জন্য, সেটাও করা হয়েছে। আবরার হত্যার বিচার দ্রুত করতে হবে। সব আইনি বাধ্যবাধকতা শেষ করে আমরা আবরার হত্যা মামলার বিচার করবো।" 


উল্লেখ্য, পুলিশ আবরার হত্যা মামলার তদন্তকাজ শেষে আজ দুপুরে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে ২৫ জন আসামির নামে অভিযোগপত্র দায়ের করে। রাফি, তানিন, মোর্শেদে ও জিসান এই চারজন পলাতক আসামী বাদে বাকি ২১ জন এখন কারাগারে বন্দি।কারাগারে আটক বন্দিরা হোল: মেহেদী হাসান রবিন, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির, মো. মনিরুজ্জামান মনির, মো. মুজাহিদুর রহমান, মুহতাসিম ফুয়াদ, মো. অনিক সরকার,মো.  মো. মেফতাহুল ইসলাম জিওন, মুনতাসির আলম জেমি, মোয়াজ আবু হুরায়রা, মো. আকাশ হোসেন, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মো. মাজেদুল ইসলাম, শামীম বিল্লাহ, এ এস এম নাজমুস সাদাত, মেহেদী হাসান রাসেল ও ইফতি মোশাররফ সকাল।




মন্তব্য

মন্তব্য করুন