English
মঙ্গলবার ০১ ডিসেম্বর ২০২০
...

মুক্তিযোদ্ধা খোকা রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা

ঢাকা, ০৭ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবারঃ অন্তিম বাসনা পূরণ হল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার। জুরাইনে তাঁর বাবা-মার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন তিনি। ৪ অক্টোবর সোমবার নিউইয়র্কে ভোর তিনটার সময় মারা যাবার পর বাদ এশা স্থানীয় জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার মসজিদে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরদিন মঙ্গলবার রাত ১১ টায় নিউইয়র্কের জেএফকে এয়ারপোর্ট থেকে খোকার মরদেহ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সালাম পিন্টু সহ ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। 


আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার সময় ঢাকা এয়ারপোর্টে অপেক্ষমান নিজদলের নেতৃবৃন্দের কাছে খোকার লাশ পৌঁছার পর হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। সূদীর্ঘ পাঁচ বছরের বেশি সময় পর সাদেক হোসেন জীবিত খোকার স্থলে লাশ দেখতে পান সতীর্থ রাজনৈতিক সহকর্মীরা। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও মেয়র মির্জা আব্বাস সাবেক মন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুসহ বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীরা খোকার মরদেহ নিয়ে আসেন জাতীয় সংসদ ভবনে। ১১টার পর দেশে প্রথম জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায়।

নামাজে জানাজায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী, কর্নেল (অব.) অলি আহমেদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গবর্নর ড. সালেহ উদ্দিন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, কল্যাণ পার্টির সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, রাশেদ খান মেনন, জাপা মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা, ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র আতিকুল ইসলাম সহ অগণিত মানুষ।... নামাজ শেষে এই মুক্তিযোদ্ধাকে জাতীয় বীর হিসেবে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

 
মরহুমের লাশ সংসদ ভবন থেকে নিয়ে যাওয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। এখানে ১২ টা থেকে ১টা পর্যন্ত সর্ব স্তরের অগণিত মানুষ তাঁকে ফুল দিয়ে সম্মান জানান।গণফোরাম নেতা অধ্যাপক আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরউল্লাহ চৌধুরী,বাসদ সভাপতি খালেকুজ্জামান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, এলডিপি মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ, গণসংহতি আন্দোলনের সভাপতি জোনায়েদ সাকি, ফকির আলমগীর, ডাকসু সহসভাপতি নুরুল হক নুরু, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, চিত্রনায়ক উজ্জল সহ আরও অনেকে। 


কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে মরহুম খোকার কফিন নিয়ে আসা হয় বিএনপির কেন্দ্রীয় অফিস নয়া পল্টনের সামনে, এখানে দলের নেতা-কর্মী ছাড়াও সব ধরনের অগণিত মানুষ তাঁর নামাজে জানাজায় শরিক হয়। এরপর সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ তাঁর প্রিয় স্থান ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ভবনে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকনসহ কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ নামাজে জানাজায় শরিক হন। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন সাবেক এই মেয়রের সম্মানে ছুটি দেয়া হয়েছিল।  

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ভবন থেকে মরহুমের মরদেহ গোপীবাগের নিজ বাসায় নেবার আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসী পর কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। পরিবার পরিজনদের শেষ বিদায়ের পর আছর নামাজের পর ধূপখোলা মাঠে সর্বশেষ নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। অতঃপর রাষ্ট্রায় মর্যাদায় গার্ড অব অনার শেষে খোকার অন্তিম বাসনা পূরণের উদ্দেশ্যে সন্ধ্যায় জুরাইন গোরস্তানে পিতা-মাতার কবরের পাশেই তাঁকে সমাহিত করা হয়।  




মন্তব্য

মন্তব্য করুন