English
সোমবার ০৬ জুলাই ২০২০
...

বার্মার বিরুদ্ধে ঘানার মামলার রায় ২৩ জানুঃ

রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থী

ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি ২০২০, বুধবারঃ আজ গাম্বিয়ার সরকার টুইটারে দেয়া এক বার্তায় জানায় যে, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর গণহত্যার অভিযোগ প্রশ্নে জরুরি পদক্ষেপ নেয়া হবে কিনা সে বিষয়ে জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত আগামী ২৩ জানুয়ারি আদেশ দেবে। এএফপি সূএে জানা যায়, দ্য হেগে অবস্থিত ওই আদালতে মিয়ানমারের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন দেশটির বেসামরিক নেতা ও শান্তিতে নোবেল জয়ী অং সান সুচি যা অনেককে মর্মাহত করে।

ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত শুনানিতে গাম্বিয়া ইউএন জেনোসাইড কনভেনশন-১৯৪৮ ভঙ্গ করায় মিয়ানমারকে অভিযুক্ত করে... এবং একইসঙ্গে এ ধরণের নৃশংস ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ ও গণহত্যার প্রমাণ নষ্ট করার সুযোগ না দেয়ার লক্ষ্যে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণেরও আহ্বান জানায় ।

জাতিসংঘ পর্যবেক্ষকরা জানান, সেখানে সামরিক অভিযানের সময় ব্যাপক দমনপীড়ন, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ও গণহত্যা চালানোয় প্রায় ৭ লাখ ৪০ হাজার মানুষ দেশ থেকে পালিয়ে গিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা, নেদারল্যান্ড ও কানাডার সহযোগিতায় ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।  




মন্তব্য

মন্তব্য করুন